মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪
কৃষকরা আলু ১৬ টাকায় বিক্রি করে এখন কিনছেন ৫০ টাকায়
দিনাজপুর ব্যুরো
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২৩, ৭:১৯ PM আপডেট: ২১.০৯.২০২৩ ৭:২১ PM
দিনাজপুর জেলায় গত মৌসুমে ৪৫ হাজার ৫০০ হেক্টর জমিতে আলুর আবাদ অর্জিত হয়েছে। উৎপাদন হয়েছে ১১ লাখ ৬০ হাজার মেট্রিক টন আলু। ক্ষেত থেকে কৃষকরা আলু যে দামে বিক্রি করেছেন, ৬ মাস পর সেই আলু প্রায় আড়াইগুণ দামে তাদেরই কিনে খেতে হচ্ছে। এটি কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছেন না কৃষকেরা।

সরেজমিনে বাজার ঘুরে দেখা গেছে, দিনাজপুর বাহাদুর বাজার এনএ মার্কেট, রেলওয়ে বাজার, চকবাজারসহ সবখানেই বর্তমানে আলু বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৫৫ টাকা কেজি দরে। অথচ গত মার্চ মাসে এই আলু বিক্রি হয়েছে ১৬ থেকে ১৭ টাকা কেজি দরে। কৃষক পর্যায়ে যা আলু মজুদ ছিল তা শেষ হয়ে গেছে। ফলে কৃষকদের আক্ষেপের শেষ নেই। কষ্ট করে ঘাম ঝরিয়ে আলু আবাদ করলেও মজুদদাররা লাভবান হচ্ছেন অতিরিক্ত মূল্যে এখন আলু বিক্রি করছেন বলে কৃষকদের অভিযোগ।
দিনাজপুর সদর উপজেলার শেখপুরা ইউনিয়নের ভাত গ্রামের কৃষক শরিফ উদ্দীন বলেন, ‘যখন আলু জমি থেকে তুলেছি তখন দাম ছিল ১৬ থেকে ১৭ টাকা। ওই আলু তো তারা রেখে দিতে পারেনি। কারণ, আলু বিক্রি করার টাকা দিয়েই আমাদের অন্য ফসল উৎপাদন করতে হয়। এখন তাদের আবাদ করা আলুই কিনতে হচ্ছে ৫০ থেকে ৫৫ টাকা কেজি দরে। লাভ হচ্ছে মজুদদার ব্যবসায়ীদের। 

হঠাৎ আলুর এমন দাম বৃদ্ধিতে শুধু কৃষকেরা নয়, ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সাধারণ ক্রেতারা। সরকার যে মূল্য নির্ধারণ করেছে প্রতিকেজি আলু ৩৬ থেকে ৪০ টাকা করে। সেই দামে বাজারে আলু পাওয়া যাচ্ছে না। গ্রাম বা শহর সবখানে আলু বেশি দামে বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা।

দিনাজপুর বাহাদুর বাজারে আলু কিনতে আসা বীর মুক্তিযোদ্ধা শওকত আলী বলেন, ‘সরকার নির্ধারিত মূল্য তালিকা ঝুলানো থাকলে সেই দামে আলু পাচ্ছি না। বেশি দামে আলু কিনতে হচ্ছে। কার্ডিনাল জাতের আলু ৫০ টাকা কেজি, কিন্তু মূল্য রয়েছে ৩৬ টাকা কেজি।

আরেক ক্রেতা রফিজুল ইসলাম বলেন, ‘সবকিছুর সঙ্গে সঙ্গে আলুরও দাম বেশি। যা উপার্জন হয় তা তো বাজার করতেই শেষ। সরকার দাম নির্ধারণ করে দিয়েও তো কোনো লাভ নেই।

বাহাদুর বাজারের রমজান আলী নামে এক সবজি বিক্রেতা বলেন, ‘আমাদের যে দামে কিনতে হচ্ছে তাতে ২ টাকা লাভ রেখে আলু বিক্রি করছি। এখানে তো আমাদের কিছু করার নেই। বড় বড় আড়ৎদার যারা রয়েছেন, তারাই বিষয়টি ভালো বলতে পারবেন।

তালিকা ঝুলানো পর দাম বেশি কেন এমন প্রশ্নে কথা বলতে চাননি ওই বাজারের আড়ৎদাররা। যদি তালিকা না থাকা ও বেশি দামে আলু বিক্রি করার অভিযোগে গত ৩ দিনে শহরে বাহাদুর বাজারে মেসার্স জাকির ট্রেডার্সের মালিক জাকির হোসেন, সোহাগ স্টোর ও গাজী স্টোরকে জরিমানা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

এ বিষয়ে দিনাজপুর ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মমতাজ বেগম বলেন, ‘আলুর দাম বৃদ্ধির বিষয়ে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা কাজ করছি। ইতোমধ্যে কয়েকটি হিমাগার ও বাজারে অভিযান চালানো হয়েছে। জরিমানার পাশাপাশি সতর্ক করা হয়েছে। সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। 

আজকালের খবর/ওআর








সর্বশেষ সংবাদ
মার্কিন শ্রমনীতি পোশাক রপ্তানিতে নেতিবাচক অবস্থা তৈরি করতে পারে: পররাষ্ট্র সচিব
স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহজাহান ভূঁইয়ার কর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা-হয়রানি
একদিনে দশটি পথসভা, উঠান বৈঠক ও একটি জনসভা করেন সাজ্জাদুল হাসান এমপি
নতুন বছরে সুদহার বাড়ছে
শেখ হাসিনার প্রতি আস্থা রেখেই আজকের উন্নত বাংলাদেশ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
রাজপথের আন্দোলনে জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠা হবে: মুরাদ
অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে অনন্য ভূমিকায় ইসলামী ব্যাংক
ইতিহাসের মহানায়ক: একটি অনন্য প্রকাশনা
নতুন বই বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
এক দিনে সারাদেশে ২১ নেতাকে বহিষ্কার করল বিএনপি
Follow Us
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি : গোলাম মোস্তফা || সম্পাদক : ফারুক আহমেদ তালুকদার
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : হাউস নং ৩৯ (৫ম তলা), রোড নং ১৭/এ, ব্লক: ই, বনানী, ঢাকা-১২১৩।
ফোন: +৮৮-০২-৪৮৮১১৮৩১-৪, বিজ্ঞাপন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৯, সার্কুলেশন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৮, ই-মেইল : বার্তা বিভাগ- [email protected] বিজ্ঞাপন- [email protected]
কপিরাইট © আজকালের খবর সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft