শনিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৭
রোহিঙ্গা সঙ্কট নিয়ে মিয়ানমারকে হুঁশিয়ার করবেন টিলারসন
অনলাইন ডেস্ক
Published : Tuesday, 14 November, 2017 at 11:31 AM, Update: 14.11.2017 11:34:56 AM

মিয়ানমারের রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর ব্যাপক ‘নৃশংসতার’ মুখে দেশটির সেনাবাহিনীর ওপর সতর্কভাবে চাপ বাড়াচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। অবশ্য অং সান সুচি’র বেসামরিক সরকার যাতে বিপদে না পড়ে, সে দিকেও তারা খেয়াল রাখছে।

এই অঞ্চলে আরো সক্রিয় ভূমিকা গ্রহণ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। গত কয়েক সপ্তাহে বেশ কয়েকটি মার্কিন প্রতিনিধিদল এই অঞ্চল সফর করেছে। এরই অংশ হিসেবে আগামীকাল মিয়ানমার সফরে যাচ্ছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন। সফরকালে তিনি দেশটির নেত্রী সুচি ও সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল মিন আং হলাইংয়ের সাথেও সাক্ষাত করবেন।

টিলারসন মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর নেতাদের সাথে কঠোর ভাষায় কথা বলবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। তার মতে, রোহিঙ্গা সঙ্কটের জন্য তারাই ‘দায়ী।’

বিদ্রোহী দমনের নামে আগস্ট মাসের শেষ দিক থেকে রাখাইন রাজ্যে সামরিক অভিযান শুরু করে সেনাবাহিনী। তারা গ্রামের পর গ্রাম জ্বালিয়ে দেয়। পরিণতিতে বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে বড় গণ-অভিবাসনের ঘটনা ঘটে। রোহিঙ্গাদের ওপর পরিচালিত হত্যাকা-, গণধর্ষণকে জাতিসংঘ ‘জাতি নির্মূল’ বলে অভিহিত করেছে।

বাংলাদেশে রোহিঙ্গা উদ্বাস্তু শিবির পরিদর্শন করে মার্কিন পররাষ্ট্র বিভাগের উদ্বাস্তু ও অভিবাসনবিষয়ক কর্মকর্তা সিমন হেনশ পরিস্থিতিকে ‘করুণ’ হিসেবে অভিহিত করেন।

তিনি বলেন, উদ্বাস্তু সঙ্কটের মাত্রা ভয়াবহ। লোকজন খুবই কষ্টে আছে।

তিনি বলেন, অনেক উদ্বাস্তু তাকে বলেছে, তাদের গ্রাম পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে, তাদের সামনেই স্বজনদের হত্যা করা হয়েছে।

টিলারসন গত মাসে বলেছিলেন, ওই এলাকায় সংঘঠিত নৃশংসতায় বিশ্ব চোখ বন্ধ করে থাকতে পারে না।

তবে যুক্তরাষ্ট্র কী পদক্ষেপ নেবে তা নিশ্চিত নয়। এখন পর্যন্ত পররাষ্ট্র দফতর মিয়ানমারের সেনাবাহিনীকে টার্গেট করে কিছু শাস্তিমূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

তবে হিউম্যান রাইটস ওয়াচের সারাহ ম্যারগান এএফপিকে বলেন, প্রাথমিক নিন্দা জ্ঞাপন খুবই ‘গুরুত্বপূর্ণ।’ কিন্তু তারা সেখানেই থেমে আছে। এরপর থেকে সুনির্দিষ্ট কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে খুবই কম।

তিনি সাম্প্রতিক সময়ের সবচেয়ে নৃশংস ও নির্মম নির্যাতন বন্ধে অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপের আহ্বান জানান।

হোয়াইট হাউজ বা পররাষ্ট্র দফতরের আরো দৃঢ়প্রতিজ্ঞ ব্যবস্থা গ্রহণের অনুপস্থিতিতে বেশ কয়েকজন কংগ্রেস সদস্য মিয়ানমারের সাথে সামরিক সহযোগিতা সীমিত করা এবং এর সামরিক বাহিনীর সদস্যদের মার্কিন ভূখণ্ডে নিষিদ্ধ করার আহ্বান জানাচ্ছেন।

রোহিঙ্গাদের প্রতি সহানুভূতি প্রকাশ না করায় সুচি বিদেশে বেশ চাপের মধ্যে আছেন।- সংবাদসংস্থা

আজকালের খবর/এসএ



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি : গোলাম মোস্তফা || সম্পাদক : ফারুক আহমেদ তালুকদার
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : আজিজ ভবন (৫ম তলা), ৯৩ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০।
ফোন : +৮৮-০২-৪৭১১৯৫০৬-৮। বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭৮৭-৬৮৪৪২৪, ০১৭৯৫৫৫৬৬১৪, সার্কুলেশন : +৮৮০১৭৮৯-১১৮৮১২
ই-মেইল : newsajkalerkhobor@gmail.com, addajkalerkhobor@gmail.com
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক আজকালের খবর
Web : www.ajkalerkhobor.com, www.eajkalerkhobor.com