বুধবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৭
ঝিনাইদহ-৪ বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী নাজিম মাহমুদ
মোজাম্মেল হক তুহিন
Published : Tuesday, 29 August, 2017 at 8:11 PM

বি এম নাজিম মাহমুদ

বি এম নাজিম মাহমুদ

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বি এম নাজিম মাহমুদ ঝিনাইদহ-৪ (কালীগঞ্জ) থেকে একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশায় গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। নির্বাচনের প্রস্তুতিসহ সার্বিক বিষয় নিয়ে আজকালের খবর-এর সঙ্গে কথা বলেছেন তিনি।

কালীগঞ্জ উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন নাজিম মাহমুদ। বর্তমানে উপজেলা সদরের মোবারকগঞ্জ সুগার মিল সংলগ্ন বাসস্থান। বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা রেজাউল ইসলাম শিক্ষকতা পেশা থেকে অবসর নিয়ে রাজনীতিতে সক্রিয় রয়েছেন। বর্তমানে ঝিনাইদহ জেলা বিএনপির মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা দলের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। মা রহিমা খাতুনও শিক্ষকতা পেশায় ছিলেন। বর্তমানে তিনিও অবসরপ্রাপ্ত।

নাজিম মাহমুদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগ থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করে প্রাইম ইউনিভার্সিটি থেকে এলএলবি সম্পন্ন করছেন। পরে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগে মাস্টার্সে ভর্তি হন। রাজনৈতিক বৈরি পরিস্থিতির কারণে কোর্স সম্পন্ন করতে পারেননি।

১৯৯৮ সালে রাজধানীর তেজগাঁও কলেজে ভর্তি হওয়ার পরেই ছাত্রদলের রাজনীতিতে জড়িয়ে পরেন। তেজগাঁও কলেজ শাখা ছাত্রদলের ক্রীড়া সম্পাদক নির্বাচিত হন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল শাখা ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, ২০০৯ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক নির্বাচিত হন। ২০১৩ সালে কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-আন্তর্জাতিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ছাত্ররাজনীতি ছাড়াও নাজিম মাহমুদ এলাকায় সমাজ সেবামূলক কাজ করছেন দীর্ঘদিন থেকেই। ২০১৫ সালে প্রতিষ্ঠিত করেন ‘বন্ধন’ নামের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। ৪১ জন সদস্যকে নিয়ে এই সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নাজিম মাহমুদ দ্বিতীয় বারের মতো সভাপতির দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।

জাতীয়বাদী রাজনীতির প্রতি তার আগ্রহের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘বাবার অনুপ্রেরণা আর শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের দর্শনে আকৃষ্ট হয়েই ছাত্রদলের রাজনীতিতে যোগ দিই।’

নির্বাচনের আগ্রহ ও প্রস্তুতির বিষয়ে আজকালের খবরকে নাজিম মাহমুদ বলেন, ‘বর্তমান দেশের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে সাধারণ জনগণ তরুণ নেতৃত্বের প্রতি আগ্রহ দেখাচ্ছে। যার পরিপ্রেক্ষিতে দলের উচ্চ পর্যায় থেকেও তরুণ নেতৃত্বে সবুজ সংকেত দেওয়া হয়েছে। সেই প্রেক্ষাপট থেকেই আমার নির্বাচন করার আগ্রহ। প্রায় দেড়যুগের বেশি সময় ধরে ছাত্রদলের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত আছি। একইসঙ্গে এলাকায় সমাজসেবামূলক কার্যক্রমেও জড়িত রয়েছি। এসব বিবেচনায় দল আমার প্রতি আস্থা রাখবে বলে আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিগত দিনের প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে সক্রিয় ভ‚মিকা পালন করেছি। ২০-২৫টি মামলার আসামি করা হয়েছে। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গেও তিনটি মামলার আসাসি করা হয়েছে। আন্দোলন সংগ্রামে অংশ নিতে গিয়ে দুইবার কারাবরণ করতে হয়েছে আমাকে। প্রথমবার ২০১২ সালে নয়াপল্টনের দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে আমাকে আটক করা হয়েছিল, সেই সময় তিন মাস কারাভোগ করি। পরে ২০১৪ সালেও আরেকবার আটক করা হয়। রাজনৈতিক বৈরি পরিবেশে এলাকার নেতাকর্মী বিশেষ করে ছাত্রদল ও যুবদলের নেতাকর্মীদের দুঃসময়ে পাশে থাকার চেষ্টা করি। তাদের মামলা-মোকাদ্দমায় আইনি সহযোগিতাসহ সাধ্যমত সহযোগিতার চেষ্টা করি।’

এই ছাত্রনেতার দাবি এসব বিবেচনায় দলের হাইকমান্ড তার প্রতি আস্থা রাখবে। তবে তার বক্তব্য হচ্ছে- ‘এই দুঃসময়ে দল ও দেশের বৃহৎ স্বার্থে বিএনপি চেয়ারপারসন ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যানের যেকোনো সিদ্ধান্ত মেনে নিতেও প্রস্তুত আমি। মনোনয়ন না পেলেও দলের মনোনীত প্রার্থী তথা ধানের শীষকে বিজয়ী করতে সর্বাত্মক চেষ্টা করব।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের ‘বন্ধন’ সংগঠনের পক্ষ থেকে এ পর্যন্ত ১৮টি স্কুলের গরীব ও মেধাবী ৬২টি জন শিক্ষার্থীকে শিক্ষাবৃত্তি দেওয়া হয়েছে। প্রায় এক হাজার মানুষের মধ্যে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ওষুধ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও প্রায় কয়েকশ মানুষের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে।’

নাজিম মাহমুদ বলেন, ‘দলের মনোনয়ন পেলে ও ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের জনগণের রায়ে নির্বাচিত হতে পারলে আমার এলাকার সার্বিক উন্নয়নে নিজেকে নিয়োজিত করব। পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠিকে সমাজের উন্নয়নের মূলস্রোতে নিয়ে আসব।’

তিনি বলেন, ‘কালীগঞ্জ মাদকপ্রবণ এলাকা হিসেবে চিহ্নিত। জনগণ ও প্রশাসনের সার্বিক সহায়তায় মাদকমুক্ত এলাকা হিসেবে গড়ে তুলব। অবকাঠামোগত উন্নয়নের ম্যাধমে মানুষের জীবনযাত্রায় আধুনিকতার ছোঁয়া পৌঁছে দেব সবার কাছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘সৎ, যোগ্য ও তরুণ নেতৃত্বে প্রতি মানুষের আগ্রহ রয়েছে। সেই আগ্রহ কাজে লাগিয়ে সাধারণ জনগণকে সম্পৃক্ত করার মধ্য দিয়ে কাঙ্খিত উন্নয়ন ত্বরান্বিত করা সম্ভব।’

আজকালের খবর/এসএ



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি : গোলাম মোস্তফা || সম্পাদক : ফারুক আহমেদ তালুকদার
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : আজিজ ভবন (৫ম তলা), ৯৩ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০।
ফোন : +৮৮-০২-৪৭১১৯৫০৬-৮। বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭৮৭-৬৮৪৪২৪, ০১৭৯৫৫৫৬৬১৪, সার্কুলেশন : +৮৮০১৭৮৯-১১৮৮১২
ই-মেইল : newsajkalerkhobor@gmail.com, addajkalerkhobor@gmail.com
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক আজকালের খবর
Web : www.ajkalerkhobor.com, www.eajkalerkhobor.com