বৃহস্পতিবার, ২৯ জুন, ২০১৭
হার কমে নতুন নামে আসবে আবগারি শুল্ক -অর্থমন্ত্রী
অর্থনৈতিক প্রতিবেদক
Published : Sunday, 18 June, 2017 at 10:53 PM

হার কমে নতুন নামে আসবে আবগারি শুল্ক -অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলছেন, আবগারি শুল্ক নিয়ে নানা ধরনের কথা হচ্ছে। এটা নিয়ে যখন এত কথা হচ্ছে তখন বাজেট পাস করার সময় শুল্কের হার পরিবর্তন করা হবে। তিনি বলেন, ব্যাংকের অ্যাকাউন্টের ওপর আবগারি শুল্ক নামটা ঠিক যায় না। তাই এর নাম পরিবর্তন করে ইনকাম ট্যাক্সের আদলে কিছু একটা রাখা হবে। রবিবার সচিবালয়ে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে ২০১৭-১৮ সালের বর্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

উল্লেখ্য, অর্থমন্ত্রী গত ১ জুন তার বাজেট প্রস্তাবে ব্যাংক হিসাবের ওপর বাড়তি হারে আবগারি শুল্ক আরোপের প্রস্তাব করেছেন। অর্থমন্ত্রীর প্রস্তাব, বছরের যেকোনো সময় ব্যাংক হিসাবে এক লাখ টাকার বেশি স্থিতি থাকলে আবগারি শুল্ক বিদ্যমান ৫০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৮০০ টাকা করা হবে। পাশাপাশি ১০ লাখ থেকে এক কোটি টাকা পর্যন্ত এক হাজার ৫০০ টাকার বদলে দুই হাজার ৫০০ টাকা, এক কোটি থেকে পাঁচ কোটি টাকা পর্যন্ত সাত হাজার ৫০০ টাকার বদলে ১২ হাজার টাকা এবং পাঁচ কোটি টাকার  বেশি লেনদেনে ১৫ হাজার টাকার বদলে ২৫ হাজার টাকা আবগারি শুল্ক আরোপের প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে অর্থমন্ত্রী বলেন, বাজেটে সমালোচনার জন্য যখন বেশি কিছু খুঁজে পাওয়া যায় না, তখন তো কিছু বের করতে হয়। এবার সবচেয়ে বেশি সমালোচনা এসেছে আবগারি শুল্ক নিয়ে। আমি তো আগেই বলেছি, বাজেট তো হলো প্রস্তাব। যখন এটা পাস হয়, তখন অনেক কিছুরই পরিবর্তন হয়। এই বিষয়ে চিৎকার যা আছে, তা পরিবর্তন হবে। বাজেট তো পাস হবে ঈদের পরে, তাই এখনই বলে দিচ্ছি যাতে সবাই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারেন। টাকা পাচার বিষয়ে কী পদক্ষেপ নিচ্ছেন- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, পাচার তো হয় কালো টাকা আছে বলে। কালো টাকার সুযোগ যাতে বন্ধ হয়, সে জন্য আমরা অভিযান শুরু করব। জমি নিবন্ধন কালো টাকা উৎপাদনের একটি বড় উৎস- এমন মন্তব্য করে অর্থমন্ত্রী বলেন,  যে দামে জমি বিক্রি হয় প্রকৃত মূল্যের সঙ্গে তার দশ গুণ পার্থক্য।

সুতরাং নয় গুণ কালো টাকা হয়ে যায়। এই ব্যাপারে কিছু পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানান অর্থমন্ত্রী। মুহিত বলেন, আমাদের আর্থিক খাত নিয়ে বাজারে অনেক সমালোচনা রয়েছে। বিশেষ করে বাজেট দেওয়ার পরে সমালোচনা উচ্চ পর্যায়ে উঠেছে। যখন কোনো দুর্বলতা পাওয়া যায় না- তখন একটা কিছু বের করতে হয়। সেটা এবার সবচেয়ে বেশি হয়েছে। যেমন ব্যাংক অ্যাকাউন্টের আবগারি শুল্ক আদায়, নামটা হয়তো ঠিক নেই। আমরা নামটা আমরা পরিবর্তন করবো। ইনকাম ট্যাক্সের আদলে কিছু একটা নাম দেওয়া হবে। এ সময় অনুষ্ঠানে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব ইউনুসুর রহমানসহ সব রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকরা (এমডি) উপস্থিত ছিলেন।

আজকালের খবর/রাসিব



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি : গোলাম মোস্তফা || সম্পাদক : ফারুক আহমেদ তালুকদার
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সুমনা গণি ট্রেড সেন্টার, (৪ তলা) প্লট-২, পান্থপথ (সার্ক ফোয়ারা মোড়), ঢাকা।
ফোন : ০২-৫৫০১৩২১৪ ফ্যাক্স : ০২-৫৫০১৩২১৫, বিজ্ঞাপন : ০১৭৮৭৬৮৪৪২৪, সার্কুলেশন : ০১৭৮৯১১৮৮১২
ই-মেইল : newsajkalerkhobor@gmail.com, addajkalerkhobor@gmail.com
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক আজকালের খবর
Web : www.ajkalerkhoborbd.com, www.eajkalerkhobor.com