বৃহস্পতিবার, ২৯ জুন, ২০১৭
পাকিস্তান চ্যাম্পিয়ন
ক্রীড়া প্রতিবেদক
Published : Sunday, 18 June, 2017 at 10:25 PM, Update: 18.06.2017 11:24:47 PM

পাকিস্তান চ্যাম্পিয়ন

র‌্যাংকিংয়ে অষ্টম হিসেবে আসরে সুযোগ, প্রথম ম্যাচেই ভারতের কাছে শোচনীয় হার। সেই ভারতকেই  ১৮০ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে প্রথমবারের মতো আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শিরোপা জিতে নিয়েছে পাকিস্তান। রবিবার রাতে ওভালে ভারতের বিপক্ষে জয় পাকিস্তানে ঈদের আগাম উৎসবের উপলক্ষ এনে দেয়। প্রথমে ব্যাট করে পাকিস্তানের চার উইকেটে ৩৩৮ রানের জবাবে ভারতের ইনিংস থামে ১৫৮ রানে। ৩০ ওভার ৩ বলে অলআউট হয় ভারত। ২০০৬ সালে সফরফরাজের নেতৃত্বে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জিতেছিল পাকিস্তান, এবার চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জিতে আইসিসির মর্যাদাপূর্ণ এ ট্রফিও ঘরে তুললো তারা। 

জয়ের জন্য ৩৩৯ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় ভারত। আমিরের তৃতীয় বলেই এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে পড়েন রোহিত শর্মা (০), দলীয় স্কোরও শূন্য। আমিরের পরের ওভারে শিকার ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি (নয় বলে পাঁচ রান)। তৃতীয় বলে প্রথম স্লিপে আজহার আলী ক্যাচ ছাড়লেও, পরের বলে পয়েন্টে এক হাতে ক্যাচ নেন সাদাব খান। ছয় রানে দুই উইকেট। আমিরের পরের শিকার আরেক ওপেনার শিখর ধাওয়ান, ২২ বলে ২১ রান করা ধাওয়ান ক্যাচ দেন উইকেট রক্ষক সরফরাজের হাতে। ৩৩ রানে নেই তিন উইকেট। ১২ ওভার শেষে হাফ সেঞ্চুরি আসে ভারতের ইনিংসে।

চতুর্থ উইকেট জুটিতে যুবরাজ-ধোনী দলকে এগিয়ে নেওয়ার প্রচেষ্টা চালালেও, তিন বলের ব্যবথানে যুবরাজ (৩১ বলে ২২ রান) ও ধোনী (১৬ বলে চার) ফিরলে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে ভারত। ৫৪ রানে অর্ধেক ব্যাটসম্যান প্যাভেলিয়নে। ১৭তম ওভারে দলীয় ৭২ রানে কেদার যাদবের (১৩ বলে নয় রান) বিদায়ে, পয়েন্টে দৌড়ে ক্যাচ নেন অধিনায়ক সরফরাজ।  সতীর্থদের আসা যাওয়ার মধ্যেই  ৩৬ বলৈ (তিন বাউন্ডারি ও চার ছক্কা) হাফ সেঞ্চুরি করেন হার্দিক পান্ডিয়া। পাকিস্তানের অনিয়মিত বোলারদের ওপর ঝড় তোলা পান্ডিয়া দলীয় ১৫২ রানে ফেরেন রান আউট হয়ে ব্যক্তিগত ৭৬ রানে (৪৩বলে, চার বাউন্ডারি ও ছয় ছক্কা)। ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ আবারো নেয় পাকিস্তান। জাদেজাও বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি, জুনায়েদের বলে স্লিপে বাবরের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ১৫ রান করে। হাসান আলীর  পরের ওভারে আশ্বিনের বিদায়ে ১৫৬  রানে পতন নবম উইকেটের। গ্যালারিতে পাকিস্তানের সমর্থকদের উৎসব শুরু।

এর আগে, টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। বল হাতে শুরুটা ভালোই করেন এবারে আসরে ভারতের সেরা বোলার পেসার ভুবেনশ্বর কুমার। প্রথম ওভারেই মেডেন। অন্য প্রান্তে জসপ্রিত বুমরাহ দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই পাকিস্তানের ওপেনার ফকর জামানকে তুলে নেন বুমরাহ, ডেলিভারিটি ‘নো’ ডাকেন অনফিল্ড আম্পায়ার। ফলে ব্যক্তিগত ৩ রানেই নিশ্চিতভাবে জীবন পেয়ে যান জামান।  এরপরই ভারতীয় বোলারদের উপর চড়ে বসে  চাকা দ্রুত গতিতে ছুটিয়েছেন আজহার। শুরুতে সর্তক ছিলেন জামান, এরপরই চড়াও হন। ওভার শেষে ১০০ রানে পৌঁছে যায়  পাকিস্তান।

এসময় আজহার ৪৬ ও জামান ৪১ রানে অপরাজিত ছিলেন।  দলীয় ১২৮ রানে ভেঙে উদ্বোধনী  জুটি। রান আউটের ফাঁদে পড়ে আউট হন আজহার। ছয় চার ও এক  ছক্কায় ৭১ বলে ৫৯ রান করে বিদায় নেন আজহার। আউট হওয়ার আগে জামানকে নিয়ে আইসিসির ইভেন্টে ভারতের বিপক্ষে উদ্বোধনী জুটিতে পাকিস্তানের  সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়েন আজহার। দ্বিতীয় উইকেটেও বড় জুটি পেয়েছে পাকিস্তান। জামানের সঙ্গে ৬১ বলে ৭২ রানের জুটি গড়েন বাবর আজম। এর মাঝে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরির স্বাদ পান এবারের আসরের গ্রুপ পর্বে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেক হওয়া জামান। ভারতের মিডিয়াম পেসার হার্ডিক পান্ডের বলে আউট হওয়ার আগে ১২টি চার ও তিন ছক্কায় ১০৬ বলে ১১৪ রান করেন জামান।

জামানকে ফিরিয়ে দেয়ার পর পাকিস্তানের রানের লাগাম টেনে আনার পরিকল্পনা করে ভারতের বোলাররা। চার নম্বরে নামা শোয়েব মালিককে ১২ রানের বেশি করতে দেননি ভুবি। ১৬ বলে ১২ রান করেন মালিক। ৪০তম ওভারের চতুর্থ বলে দলীয় ২৪৭ রানে চতুর্থ উইকেট হারায় পাকিস্তান।  পাকিস্তানকে তিনশর মধ্যে পাকিস্তানকে আটকে রাখার অসম্ভব চিন্তা করে ভারত। তা হতে দেননি মোহাম্মদ হাফিজ ও  ইমাদ ওয়াসিম। পঞ্চম উইকেটে ৪৫ বলে অবিচ্ছিন্ন ৭১ রান যোগ করেন হাফিজ-ওয়াসিম। ফলে চার উইকেটে ৩৩৮ রানের বড় সংগ্রহ পায় পাকিস্তান। ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৩২তম হাফ-সেঞ্চুরি তুলে ৫৭ রানে অপরাজিত থাকেন হাফিজ। তার ৩৭ বলের ইনিংসে চার বাউন্ডারি  ও তিন ছক্কা। অন্য প্রান্তে একটি করে চার ও ছক্কায় ২১ বলে অপরাজিত ২৫ রান করেন ওয়াসিম। ভারতের পক্ষে  ভুবেনশ্বর, পান্ডে ও কেদার একটি করে উইকেট নেন।

আজকালের খবর/রাসিব


সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি : গোলাম মোস্তফা || সম্পাদক : ফারুক আহমেদ তালুকদার
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সুমনা গণি ট্রেড সেন্টার, (৪ তলা) প্লট-২, পান্থপথ (সার্ক ফোয়ারা মোড়), ঢাকা।
ফোন : ০২-৫৫০১৩২১৪ ফ্যাক্স : ০২-৫৫০১৩২১৫, বিজ্ঞাপন : ০১৭৮৭৬৮৪৪২৪, সার্কুলেশন : ০১৭৮৯১১৮৮১২
ই-মেইল : newsajkalerkhobor@gmail.com, addajkalerkhobor@gmail.com
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক আজকালের খবর
Web : www.ajkalerkhoborbd.com, www.eajkalerkhobor.com