বৃহস্পতিবার, ২৯ জুন, ২০১৭
মডেল বানানোর প্রলোভনে তরুণীকে ধর্ষণ: অভিনেতা তানভীর কারাগারে
আদালত প্রতিবেদক
Published : Saturday, 17 June, 2017 at 9:58 PM

মডেল বানানোর প্রলোভনে তরুণীকে ধর্ষণ: অভিনেতা তানভীর কারাগারে

ফেসবুকে পরিচয়, অতঃপর বন্ধুত্ব। স্বপ্ন দেখান মডেল বানাবেন। তাও আবার সরাসরি মালয়েশিয়ার একটি পণ্যের। সব ঠিকঠাক তবে ভিসা পাসপোর্ট নিতে বাসায় যেতে হবে। এমন প্রলোভন দিয়ে রাজধানীর রূপনগরে নিজ বাসায় এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে অভিনেতা তানভীর তনুকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ শনিবার ঢাকার মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনসারীর আদালতে হাজির করে রিমান্ড আবেদন করলে আদালত তা না-মঞ্জুর করে  কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢাকার অপরাধ, তথ্য ও প্রসিউকিশন বিভাগের উপকমিশনার আনিসুর রহমান জানান, মিথ্যা প্রলোভনে তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামালায় অভিনেতা তানভীর তনুকে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের (সিএমএম) আদালতে হাজির করে পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রূপনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোকাম্মেল হক। অন্যদিকে তানভীরের পক্ষে জামিনের আবেদন করেন তার আইনজীবী। পরে আদালত জামিন নাকচ করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এর আগে ধর্ষণের মামলায় গত শুক্রবার রাজধানীর রূপনগর আবাসিক এলাকার বাসা থেকে অভিনেতা তানভীর তনুকে গ্রেফতার করে পুলিশ। 

রূপনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহীদুল আলম আজকালের খবরকে বলেন, তানভীর তনু বিবাহিত। তিনি স্ত্রীকে নিয়ে রূপনগর এলাকার বাসায় থাকেন। ফেসবুকে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কাজ করা এক তরুণীর সঙ্গে তনুর পরিচয় হয়। পরিচয় থেকে বন্ধুত্ব। পরে তাদের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে উঠে। এক পর্যায়ে ওই তরুণীকে মালয়েশিয়ায় একটি একটি পণ্যের মডেল বানানোর প্রলোভন দিয়ে বাসায় ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন তনু। 

ওই তরুণীর করা মামলায় অভিযোগের বরাত দিয়ে ওসি আরও জানান, ৬ মে তনু তরুণীকে নিজের বাসায় ডেকে নেন তনু। সে সময় বাসায় তার স্ত্রী ছিলেন না। শুধু তার এক বন্ধু উপস্থিত ছিলেন। বাসায় যাওয়ার পর ওই তরুণীকে ধর্ষণ করেন তনু। এরপর তনু বাসায় থাকা বন্ধুকেও ধর্ষণ করতে বলেন। সে সময় তরুণী কৌশলে বাসা থেকে পালিয়ে যান। ঘটনার পর থেকেই তনু পলাতক ছিলেন। শুক্রবার রাতে বাসায় থাকার খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। ওসি আরও বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তনু ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে বলে জানান তিনি।

আজকালের খবর/রাসিব


সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি : গোলাম মোস্তফা || সম্পাদক : ফারুক আহমেদ তালুকদার
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সুমনা গণি ট্রেড সেন্টার, (৪ তলা) প্লট-২, পান্থপথ (সার্ক ফোয়ারা মোড়), ঢাকা।
ফোন : ০২-৫৫০১৩২১৪ ফ্যাক্স : ০২-৫৫০১৩২১৫, বিজ্ঞাপন : ০১৭৮৭৬৮৪৪২৪, সার্কুলেশন : ০১৭৮৯১১৮৮১২
ই-মেইল : newsajkalerkhobor@gmail.com, addajkalerkhobor@gmail.com
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক আজকালের খবর
Web : www.ajkalerkhoborbd.com, www.eajkalerkhobor.com